বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০ ইং, বাংলা ৫, কার্তিক ১৪২৭
Creation Plus
  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৫৮৮৫৮৪৯২৪

সাত করোনা রোগীর সঙ্গে একই বাড়িতে তিন্নি

সাত করোনা রোগীর সঙ্গে একই বাড়িতে তিন্নি

এক সময় বাংলা নাটক ও বিজ্ঞাপনে নিয়মিত কাজ করতেন অভিনেত্রী শ্রাবস্তী দত্ত তিন্নি। কাজ করেছিলেন দুটি চলচ্চিত্রেও। কিন্তু ২০১২ সালের পর থেকে তিনি অভিনয় থেকে দূরে। তেমনি দূরে দেশ থেকেও। প্রথম সংসারের মেয়ে ওয়ারিশাকে নিয়ে কয়েক বছর ধরে তিন্নি বসবাস করছেন কানাডার কুইবেক প্রদেশে।

এইম ইন লাইফ’ নাটকের তিন্নির কথা মনে আছে? দেড় মাস ঘরে আটকে আছেন। যে বাড়িটায় থাকছেন, সেখানে সাতজন করোনা রোগী পাওয়া গেছে। আতঙ্কে কাটছে তাঁর দিন-রাত।

 বাড়িটায় করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী পাওয়া গেছে জানার পর ভেবেছিলেন, সেখান থেকে চলে যাবেন। পরে মনে হলো দরকার নেই। বাসায় মাস্ক, হ্যান্ড গ্লাভস, স্যানিটাইজার ছিল না। সেখান থেকে একটু দূরে বন্ধু মনিকার বাড়ি। সে এসেই এসব দিয়ে গেলেন। আপাতত নিরাপদ তিন্নি। আত্মীয়স্বজনদের কী অবস্থা? তিন্নি বলেন, ‘আমার তিন ফুপু আছেন কানাডায়। বাবা–মা বাংলাদেশে। প্রতিদিনই ফোনে কথা হয়। কিন্তু বাবা-মার জন্য চিন্তা হচ্ছে। দাদাবাড়ি নেত্রকোনার কাজিনরা, ঢাকায় বাবা-মা, কানাডার ফুপুরা মিলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটা চ্যাটগ্রুপ খুলেছি। সেখানে সবাই একসঙ্গে যোগযোগ করছি।’

অভিনেত্রী আরও জানান, ‘যুক্তরাষ্ট্র থেকে টনি ডায়েস, শ্রাবন্তী, তমালিকা, রিচি সোলায়মানসহ অনেকই তার খোঁজ নিয়েছেন। এছাড়া ঢাকা থেকে পার্থ বড়ুয়া, চঞ্চল চৌধুরীসহ বেশ কয়েকজন যোগাযোগ করেছেন।’ কিন্তু মেয়ে ওয়ারিশার বাবা অভিনেতা হিল্লোল? তিন্নি বলেন, ‘সে যুক্তরাষ্ট্রে থাকে। মেয়ের সঙ্গে তার কথা হয়। দাদা-দাদি, চাচারা সবাই ওয়ারিশার খোঁজ নেন।’

হিল্লোলের সঙ্গে তিন্নি বিয়ে হয়েছিল ২০০৬ সালের ২৮ ডিসেম্বর। কয়েক বছর পর ভেঙে যায় সেই সংসার। এরপর ২০১৪ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি অভিনেত্রী বিয়ে করেন আদনান হুদা সাদ নামের আরেকজনকে। সেই সংসারেও তিন্নির একটি মেয়ে আছে। নাম আরিশা, বয়স পাঁচ বছর। কিন্তু নায়িকার সেই সংসারও টেকেনি।

তিন্নির দ্বিতীয় সংসারের মেয়ে আরিশা ঢাকায় তার বাবা আদনানের কাছে থাকে। মেয়ে ও দ্বিতীয় স্বামীর সঙ্গে তার নিয়মিত কথা হয় বলে জানান তিন্নি। অভিনেত্রী বলেন, বছর দেড়েকের মধ্যে তিনি দেশে ফিরে আসবেন। এরপর আবার অভিনয়ে নিয়মিত হওয়ার চেষ্টা করবেন।


এ জাতীয় আরো খবর